ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মশাল মিছিলে পুলিশের বাধা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর তদন্ত ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে আয়োজিত মশাল মিছিলে পুলিশের বাধার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় মিছিলের আয়োজনকারী বামপন্থী কয়েকটি সংগঠনের নেতাকর্মীদের বেধড়ক পেটানোও হয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় টিএসসি থেকে মশাল মিছিল বের করেন বাম সংগঠনগুলোর নেতা-কর্মীরা। মিছিলটি শামসুন নাহার হল ও রোকেয়া হল প্রাঙ্গণ ঘুরে শাহবাগের দিকে যায়। সেখানে পুলিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের বাক্‌বিতণ্ডা হয়৷ এর একপর্যায়ে বাম সংগঠনের একজন নেতা হাতে থাকা মশাল পুলিশের ওপর ছুড়ে মারেন। এরপর পুলিশ লাঠি ও মশালের বাঁশ হাতে তাদের ধাওয়া দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বামপন্থী নেতাকর্মীদের ধস্তাধস্তি হয়।

যদিও পুলিশের দাবি, বিক্ষোভকারীরা পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলেও তারা বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলা করেনি।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মশাল মিছিল
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মশাল মিছিল

বিক্ষোভকারীদের দাবি, পুলিশের লাঠিপেটায় ২৫-৩০ জন আহত হয়েছেন। এরমধ্যে ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সাখাওয়াত ফাহাদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক আসরাফি নিতুও রয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিক্ষোভকারীরা জানান, সন্ধ্যা ৭টার দিকে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে একটি মশাল মিছিল নিয়ে শাহবাগ মোড়ের দিকে যাচ্ছিলেন। কিন্তু মোড়ে পৌঁছানোর আগে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এসময় তাদের লাঠিপেটাও করা হয়। পুলিশের বাধার মুখে বিক্ষোভকারীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের দিকে চলে যান। এসময় ২৫-৩০ জন আহত হন।

এদিকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়ার পর শাহবাগে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুরো এলাকায় যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। শাহবাগ ও টিএসসি এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এতে সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মশাল মিছিল
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মশাল মিছিল

ঘটনার কিছুক্ষণ পর বিক্ষোভকারীদের ৪-৫ জনের একটি দল পুলিশের কাছে আটকদের বিষয়ে খোঁজ নিতে আসে। এসময় বিক্ষোভকারীদের একজন জানান, তাদের ২৫-৩০ জন আহত হয়েছেন। তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এছাড়া ৩-৪ জনকে আটক করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পুলিশের হামলার প্রতিবাদে আগামীকাল শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় ঢাবি ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাবি শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা জোনের উপকমিশনার সাজ্জাদুর রহমান জানান, আন্দোলনকারীদের হামলায় তারা কয়েকজন আহত হয়েছেন। এ সময় কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, রমনা মডেল থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গত বছরের ৬ মে ঢাকা জেলে এবং পরে ২৪ আগস্ট থেকে কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি ছিলেন লেখক মুশতাক আহমদ। বৃহস্পতিবার রাতে তিনি কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান।