হামলাকারীদের গ্রেফতারের আশ্বাসে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন প্রত্যাহার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বরিশাল
শিক্ষার্থীদের আন্দোলন প্রত্যাহার

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন প্রত্যাহার

  • Font increase
  • Font Decrease

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের আশ্বাস এবং ভবিষ্যতে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না । এমন নিশ্চয়তায় বিচারের দাবিতে ডাকা যৌক্তিক আন্দোলন প্রত্যাহার করেছে ববি শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাকক্ষে স্থানীয় প্রশাসন, বাস মালিক সমিতি, পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ও নগরীর রূপাতলী হাউজিং সোসাইটির প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রায় দুই ঘণ্টা বৈঠক শেষে এমন সিদ্ধান্ত নেয় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

পরে বিকেল ৩টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে আন্দোলন প্রত্যাহারের বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান ববি শিক্ষার্থীদের পক্ষে ফজলুল হক রাজীব।

এসময় লিখিত বক্তব্যে রাজীব বলেন, গত মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দিনগত গভীর রাতে ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় কয়েকজনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদেরসহ ওই ঘটনায় জড়িত সবাইকে গ্রেফতার করা হবে বলে এমন নিশ্চয়তা দিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ওই দিনের ঘটনায় নিন্দা প্রকাশ করে ভবিষ্যতে এমন সংঘাত আর হবে না বলে নিশ্চয়তা দিয়েছে বাস মালিক সমিতি, পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ও স্থানীয় বাড়ির মালিকদের প্রতিনিধিরা। এর ফলে হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবিতে ডাকা আমাদের যৌক্তিক আন্দোলন প্রত্যাহারের ঘোষণা করছি।

বৈঠক শেষে বরিশাল-পটুয়াখালী মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মমিনউদ্দিন কালু জানান, ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা দুঃখজনক। কিন্তু এই হামলার সঙ্গে জড়িত দুর্বৃত্তরা পরিবহন মালিক বা শ্রমিকদের কেউ না। তাই আমরা শিক্ষার্থীদের নিশ্চয়তা দিয়েছি যে ভবিষ্যতে এ ধরনের কোনো ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মোকতার হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় দুইজন হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাকিদেরও তদন্ত সাপেক্ষে আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। এছাড়া রূপাতলী এলাকায় পুলিশ টহল টিম ও নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডক্টর ছাদেকুল আরেফিন বলেন, হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে বিভিন্ন দাবি আসে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে। সেই দাবি অনুযায়ী আমরা বুধবার দুপুরে বৈঠকে বসি। সেখানে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন দাবির ব্যাপারে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। আলাচনার পরিপ্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন প্রত্যাহার করেছে ।